ইসলাম ও কোরআন বাঁচাতে চীনা মুসলিমদের সংগ্রাম

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : উইঘুর মুসলিমদের নি’র্মূ’ল করতে দীর্ঘদিন ধ’রে নানা উপায়ে অত্যা’চার চালাচ্ছে চীনের শি জিনপিং সরকার। নারীদের জোর করে গর্ভপাত করানো থেকে শুরু করে ছেলে-মেয়েদের উভয়কেই বন্দিশিবিরে আটকে রাখা হচ্ছে। আর এবার জানা গেল মুসলমানদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ কোরআন বাজেয়াপ্ত করছে চীনের কমিউনিস্ট পার্টির সরকার।

শুধু তাই নয়, যাঁর কাছ থেকে কোরআন পাওয়া যাচ্ছে তার ওপর অকথ্য অত্যাচারও চালাচ্ছে। সম্প্রতি এই এরকম একটি ঘটনার সময় ইসলাম ধর্ম ও তার পবিত্র ধর্মগ্রন্থকে বাঁচাতে প্লাস্টিকে মুড়ে পানিতে ফেলে দেন মুসলিম সম্প্রদায়ের কয়েকজন মানুষ। পরে এই ঘটনার কথা প্রকাশ্যেই আসতেই বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে।

সম্প্রতি চীনের আলমাটি অঞ্চলের পানফিলভ জেলার এড্যারলি গ্রামে প্রশাসনের হাত থেকে বাঁচতে কয়েকজন মুসলিম স্থানীয় ইলি নদীতে কোরআন ফেলে দেন। রেডিও ফ্রি এশিয়ার বরাত দিয়ে এই তথ্য জানিয়েছে জিনিউজ। সম্প্রতি খোরগাস নদীতেও একই রকম ঘটনা ঘটেছে বলে জানানো হয় ভারতীয় গণমাধ্যমটির খবরে।

রেডিও ফ্রি এশিয়ার প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে জিনিউজ জানিয়েছে, পবিত্র ধর্মগ্রন্তটিকে চীনের কমিউনিস্ট সরকারের হাত থেকে বাঁচাতে এবং কোরআন নিজেদের কাছে রাখার জন্য অত্যাচারের হাতে থেকে বাঁচতে প্লাস্টিকে মুড়ে কোরআন ফেলে দেওয়া হচ্ছে নদীতে। জিনজিয়াংয়ের মুসলমানরা কাজাখস্তানের দিকে প্রবাহিত নদীতে কোরআন ফেলেন বলে জানানো হয় প্রতিবেদনে। তারা বিশ্বাস করেন, এইভাবে তারা কেবল নিজেরাই বাঁচাতে সক্ষম হবেন না কোরআনের পবিত্রতা রক্ষা করতে পারবেন। সূত্র: জি নিউজ।

Author: hasib

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *